রূপগঞ্জে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

132
রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি: পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর নির্দেশনায় ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক গোলাম মর্তুজা পাপ্পার অনুপ্রেরনায় ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ গোলাম রূপসের নিজস্ব অর্থায়নে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ৮’শ দুস্থ্য, অসহায়, রিক্সা, ভ্যান ও সিএনজি চালকদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। রবিবার (১ মে) বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার ভূলতা ইউনিয়নের  মাছুমাবাদ প্রাইমারী স্কুল, হাটাবো বাজার, তিন নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ অফিস কার্যালয়ের সামনে এ ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ভূলতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু দাউদ মোল্লা, ইউপি সদস্য সুমন মুন্সি, মোহন মিয়া, সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য রুবি বেগম, এনএসআই কর্মকর্তা আবু, আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম সঞ্জীব, ফোরকান ফকির, আবুল মোক্তার, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি তোতাঁ মিয়া, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি কাজী হেলাল, যুবলীগ নেতা কায়েস সিকদার, ছাত্রলীগ নেতা কাজী দীপু প্রমুখ। ভূলতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু দাউদ মোল্লার বক্তব্যে তিনি বলেন, ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ গোলাম রূপস ভূলতা ইউনিয়নের মধ্যে দানবীর হিসেবে বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি অন্যের দুঃখ দেখলে ঘরে বসে থাকতে পারেন না। মানুষের বিপদ-আপদে সব সময় পাশে থাকেন।
উল্লেখ্য,ভূলতা ইউনিয়নের ১,২,৩ নং ওয়ার্ডের মাছুমাবাদ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সভাপতি হিসেবে ২য় তলা নির্মাণের সম্পূর্ণ অর্থ বহন করেন। এছাড়া বৃহত্তর মাছুমাবাদ এলাকার একটি এতিম খানার ৩০জন এতিম শিশুর খাওয়া-দাওয়াসহ তাদের সম্পূর্ণ ভরণ পোষণের খরচ বহন করেন। মাছুমাবাদ দক্ষিণ দেওয়ান বাড়ি জামে মসজিদ নিমার্ণ করার সম্পূর্ণ টাকা প্রদান করেন। কাজীপাড়া জামে মসজিদে ৫০হাজার টাকা প্রদান করেন। বৃক্ষরোপণ, করোনাকালীন খাদ্যসামগ্রী বিতরণ,শীতবস্ত্র বিতরণ, দুটি ঈদে-ঈদ সামগ্রী বিতরণ ও অসহায় দরিদ্রদের মেয়ের বিয়ের খরচ ও লেখা-পড়ার খরচসহ এমন আরো সামাজিক কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। এছাড়া শীতলক্ষ্যা ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা হিসেবেও তিনি বেওয়ারিশ লাশ দাফনের জন্য সবসময় সহযোগিতা করে আসছেন।