হৃতিক কয়েক কোটির গাড়ি উপহার দিলেন বান্ধবীকে, রাগে ঘর ছাড়েন সুজান

36

হৃতিক রোশন তার বন্ধুদের উপহার দিতে ভালোবাসেন। তবে কখনও কখনও বন্ধু ‘বিশেষ’ হলে তার ভালোবাসার মাত্রা ছাড়ায়। উপহারের মূল্য শুনে একবার প্রচণ্ড রেগে ঘর ছেড়েছিলেন হৃতিক ঘরনি সুজান। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তখনও হৃতিক-সুজান বিবাহবিচ্ছেদ হননি। আলাদা করেননি নিজেদের দাম্পত্যের পথ। তবে বিশেষ বন্ধুকে দেওয়া হৃতিকের বিশেষ উপহারের বহর দেখে সুজান দুই সন্তানকে নিয়ে চলে যান তার বাবা-মায়ের কাছে।

হৃতিক তখন সবে শেষ করেছেন কাইট ছবির শুটিং। কাইটয়ের শুটিংয়ে হৃতিকের সঙ্গে তার সহঅভিনেত্রী বারবারা মোরির রসায়ন নিয়ে তুমুল চর্চা চলছে বলিউডে। এমনও বলা হচ্ছে— যে ‘গ্রিক গড’ প্রেমে পড়েছেন মেক্সিকান অভিনেত্রীর।

জন্মসূত্রে উরুগুইয়ান বারবারা তখন মেক্সিকোর সিনেমাজগতের বড় আর বিখ্যাত মুখ। হৃতিকের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে একটিও কথা বলেননি। হৃতিকও বলছেন, ‘বারবারা খুব ভালো বন্ধু আমার। আমি আমার পারিবারিক জীবনে খুশি।’

ঠিক সেই সময়েই প্রকাশ্যে আসে একটি খবর। জানা যায়, বন্ধু বারবারাকে কাইটের শুটিং চলাকালীন একটি গাড়ি উপহার দিয়েছেন হৃতিক। যার দাম কম করে আড়াই থেকে তিন কোটি টাকা।

বন্ধুকে কোটি টাকার উপহার! শুনেই নাকি রেগে গিয়েছিলেন সুজান। তার আগে বারবারা-হৃতিক আলোচনায় সুজানের ধৈর্য বিপদসীমায় পৌঁছেছিল। উপহারের খবরে সহ্যের বাঁধ ভাঙে।

কাইটয়ের শুটিংয়ের এক কৌশলী জানিয়েছেন, বারবারাকে একটি ভ্যানিটি ভ্যান উপহার দিয়েছিলেন অভিনেতা। এ ধরনের ভ্যানিটি ভ্যানকে সাধারণত একটি ছোট বাড়িই বলা যায়। তাতে যেমন স্নানঘর থাকে, তেমনই থাকে আরাম করার জায়গা, পোশাক রাখার জায়গা, এমনকি রান্নার ব্যবস্থাও।

মেক্সিকান অভিনেত্রী নিজের দেশ ছেড়ে ভারতে এসেছিলেন ছবির শুটিং করতে। শুটিংয়ে যাতে তিনি নিজের বাড়ির কথা মনে না করেন, সে জন্যই তাকে ওই গাড়ি-বাড়ি উপহার দেন বলিউড তারকা।

কাইট ছবির ওই কৌশলীই জানিয়েছেন, উপহার পেয়ে স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছিলেন বারবারাও। তিনি ভাবতেই পারেননি এত দামি উপহার কেউ দিতে পারেন। হৃতিক তখন তাকে বলেন, তাদের বন্ধুত্বের স্বাক্ষর হিসেবে ওই উপহার গ্রহণ করতে।