রাণীনগরে কাবাডি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

45

নওগাঁ প্রতিনিধি : দেশের যুব সমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখতে ও হারিয়ে যাওয়া গ্রামীন ঐতিহ্যবাহী খেলা কাবাডিকে নতুন করে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার লক্ষে সারা দেশে শুরু হয়েছে আইজিপি কাপ কাবাডি প্রতিযোগিতা। এরই ধারাবাহিকতায় নওগাঁর রাণীনগরে আইজিপি কাপ ২০২১ জাতীয় যুব কাবাডি (বালক/বালিকা) ফাইনাল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। অপরদিকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্ম শতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে মহান বিজয় দিবস ২০২১ কাবাডি ফাইনাল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার শের-ই-বাংলা সরকারি কলেজ মাটে খেলা দুটির আয়োজন করে নওগাঁ জেলা পুলিশ।

রাণীনগর থানার ওসি মো: শাহিন আকন্দ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মো: রকিবুল হাসান ইবনে রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) নওগাঁ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও রাণীনগর প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ হারুনুর রশিদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাহবুব আলম মিঠু, সাংবাদিক হাফেজ মাওলানা মো: শহিদুল ইসলাম, আব্দুল মালেক, আওরঙ্গজেব হোসেন রাব্বী, মামুনুর রশিদ, থানার এস আই ওবায়দুল করিম, সেলিম উদ্দিন, নাজমুল হক, মানিক হোসেন সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। আইজিপি কাপ জাতীয় যুব কাবাডি প্রতিযোগিতায় রাণীনগর কাবাডি ক্লাবকে হারিয়ে কাশিমপুর কাবাডি ক্লাব বিজয়ী হয়। অপরদিকে মহান বিজয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতায় কাশিমপুর কাবাডি ক্লাবকে হারিয়ে রাণীনগর কাবাডি ক্লাব বিজয়ী হয়।

খেলা দুটি পরিচালনা করেন রাণীনগর আল-আমিন দাখিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক (শারীরিক শিক্ষা) হারুনূর রশিদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো: রকিবুল হাসান ইবনে রহমান বলেন, যুব সমাজকে মাদক ও নানা অনৈতিক কর্মকান্ড থেকে দূরে রাখার একমাত্র মাধ্যম হলো খেলাধূলা। কারণ খেলাধূলা একজন মানুষের মন ও শরীরকে সতেজ রাখে। আর দিন দিন আমাদের দেশের অনেক ঐতিহ্যবাহী খেলা হারিয়ে যেতে বসেছে।

যুব সমাজ ও নতুন প্রজন্মের কাছে এই সব হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহীকে নতুন করে পৌছে দেওয়ার লক্ষে আমাদের আইজিপি স্যার দেশব্যাপী এই কাবাডি প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছেন। স্যারের লক্ষ্য এই খেলাধূলার মাধ্যমে প্রত্যন্ত গ্রাম এলাকার অনেক মেধাবী খেলোয়াররা জাতীয় পর্যায়ে উঠে আসবে। আর যুব সমাজকে মাদক ও নানা রকমের অনৈতিক কর্মকান্ড থেকে দূরে রাখার লক্ষ্যে খেলার প্রতি তাদের আকর্ষন বৃদ্ধি করাই মূলত এই কাবাডি প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য। তাই আমরা সবাই বেশি বেশি করে খেলাধূলা করবো, নিজেকে এবং অন্যদেরকেও খেলাধূলার গ্রতি আগ্রহী করে তুলবো।