দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে প্রার্থী হওয়ায় ৯ জনকে সাময়িক বরখাস্ত

64

খান সোহেল নেত্রকোনা জেলা প্রতিনিধি : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহন করায় নেত্রকোনা সদর উপজেলায় ৯ জনকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। নেত্রকোনা জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী খান খসরু এমপি’র স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে গত ২৯ অক্টোবর এই আদেশ দেয়া হয় বলেও জানান তিনি। সাময়িক বহিস্কৃতরা হচ্ছে, সদর উপজেলার ঠাকুরাকোনা ইউনিয়নের সিদ্দিকুর রহমান, মেদনী ইউনিয়নের মিজানুর রহমান খান, মৌগাতী ইউনিয়নের এ কে এম মহিউল ইসলাম ফজল, কালিয়ারা গাবরাগাতী ইউনিয়নের এ আর আলী আজগর খান, সিংহের বাংলা ইউনিয়নের মো: আলী আহসান সুমন ও মোফাক্কারুল ইসলাম মিলন, চল্লিশা ইউনিয়ন পরিষদের মো: আব্দুল জব্বার ফকির, কাইলাটি ইউনিয়ন পরিষদের মো: আনোয়ার হোসেন এবং বিশিউড়া ইউনিয়ন পরিষদের মো: আবুল কালাম। চিঠিতে আরো উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড যাকে যোগ্য মনে করেছেন তাকে দলের মনোনয়ন প্রদান করেছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দলীয় মনোনয়ন বোর্ডের সিদ্ধান্তকে অমান্য করে দলীয় নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়ে দলের শৃংখলা ভঙ্গ করেছে তারা। সেজন্য গঠনতন্ত্র মোতাবেক তাদের সাময়িকভাবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে তাদের বহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের স্থায়ীভাবে বহিস্কারের জন্য দলীয় প্রধান আওয়ামী লীগের সভাপতি বরাবর সিদ্ধান্ত প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে সদর উপজেলা ছাড়াও আটপাড়া ও বারহাট্টা উপজেলায় আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিয়ে যারা দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করেছে তাদেরকেও সাময়িক বহিস্কার করে চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে বলেও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়। দ্বিতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জেলার সদর, আটপাড়া ও বারহাট্টা উপজেলায় আগামী ১১ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।